শনিবার , ২৬ মে ২০১৮
শিরোনাম

পূর্বাচল এলাকায় সংস্কৃতি ভবন নির্মাণ করা হবে : সংস্কৃতিমন্ত্রী

Nurr৭১বাংলা:

সংস্কৃতিমন্ত্রী আসাদুজ্জামান নূর বলেছেন, রাজধানীর উত্তরে উত্তরা সংলগ্ন পূর্বাচল এলাকায় একটি সংস্কৃতি ভবন নির্মাণ করা হবে। আজ বুধবার দ্বিবার্ষিক এশীয় চারুকলা প্রদর্শনী উপলক্ষে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে তিনি এ কথা বলেন।
সংস্কৃতিমন্ত্রী বলেন, রাজধানীর কেন্দ্র থেকে দূরবর্তী অঞ্চলের বাসিন্দাদের সংস্কৃতি চর্চ্চার সুবিধার্থে উত্তরার পূর্বাচল এলাকায় একটি সংস্কৃতি ভবন (কালচারাল কমপ্লেক্স) গড়ে তোলা হবে। এ লক্ষ্যে প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশে ইতিমধ্যেই একটি সংস্কৃতি ভবন নির্মাণের জন্য উপযুক্ত জমি খোঁজা হচ্ছে। তিনি আরো বলেন, শাহবাগ-সেগুনবাগিচা-কাকরাইলকে কেন্দ্র করে রাজধানীর প্রাণকেন্দ্রে যে সংস্কৃতি বলয় গড়ে উঠেছে তা ঢাকাবাসীর আকর্ষণের স্থান হলেও যানজটের কারণে অনেকেই এসব এলাকায় আসতে পারেন না বা সুযোগ পান না। তাদের সংস্কৃতি চর্চ্চা ও যোগাযোগের সুযোগ সৃষ্টি করতেই এ উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে।
তিনি বলেন, সরকারের পরিকল্পনাধীন এই সংস্কৃতি ভবনে শিল্প-সাহিত্য-সংস্কৃতির সম্মলন ঘটানো হবে। এখানে প্রদর্শনী কেন্দ্র, মিলনায়তন, নাট্য মঞ্চ, গ্রন্থাগারসহ শিল্প-সংস্কৃতির সব শাখার মানুষের জন্য প্রয়োজনীয় সুযোগ সুবিধা তৈরির পরিকল্পনা সরকারের রয়েছে। রাজধানীর শাহবাগ সংলগ্ন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ঘিরে জাতীয় জাদুঘর, জাতীয় গণগ্রন্থাগার অধিদপ্তর, চারুকলা ইন্সটিটিউট, ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল সংলগ্ন কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার, বিশ্ববিদ্যালয় সংলগ্ন ঐতিহাসিক সোহরাওয়ার্দী উদ্যান, বাংলা একাডেমি, ঐতিহাসিক ওসমানী উদ্যানকে কেন্দ্র করে গুলিস্তানের জাতীয় গ্রন্থকেন্দ্র, মনোরম রমনা পার্ককে কেন্দ্র করে বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমি, আন্তর্জাতিক ভাষা ইন্সটিটিউট, মুক্তিযুদ্ধ জাদুঘর (অস্থায়ী) অবস্থিত। এসব স্থাপনাকে ঘিরেই রাজধানীর সাংস্কৃতিক কর্মকাণ্ড পরিচালিত হয়। কিন্তু রাজধানীর উত্তর দিকে প্রসারিত হওয়ায় এবং যানজটের কারণে উত্তরের বাসিন্দাদের জন্য সংস্কৃতি কেন্দ্রীক যাতায়াত সম্ভব হয় না। এই উদ্যোগ সফল হলে ঢাকার পার্শ্ববর্তী এলাকার বাসিন্দারাও সংস্কৃতি চর্চ্চায় উদ্বুদ্ধ হবেন।

BIGTheme.net • Free Website Templates - Downlaod Full Themes