শনিবার , ২৬ মে ২০১৮
শিরোনাম

পাল্টাচ্ছে মীর কাসেম আলীর রায়, ন্যাপথ্যে জয়-আজমি

Joy৭১বাংলা : জামায়াতে ইসলামীর আমীর মাওলানা নিজামীর মৃত্যুদন্ডের রায়,যুদ্ধাপরাধের ইস্যুতে জামায়াতের শীর্ষ নেতারা একের পর এক দন্ডিত হচ্ছেন। আর এর নেপথ্যে চলছে সরকারের সাথে জামায়াতের সমঝোতার খেলা। প্রধান্মন্ত্রিপুত্র সজীব ওয়াজেদ জয়ের পক্ষে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার উপদেষ্টা গওহর রিজভীর আর গোলাম অজম্পুত্র আজমির পক্ষ থেকে এ সমঝোতায় দুতিয়ালী করছেন জামায়াতের শীর্ষনেতা ব্যারিষ্টার আব্দুর রাজ্জাক। তাদের মধ্যে একাধিকবার গোপন বয়্টক হয়েছে জানিয়েছে একটি বিশ্বস্থ সুত্র। সিলেটের বিয়ানীবাজারের বাসিন্দা ব্যারিষ্টার রাজ্জাক বর্তমানে লন্ডনে অবস্থান করছেন। পুর্ব লন্ডনের পপলার এলাকার বাড়িতে বসবাস করছেন রাজ্জাক।

এখানে থেকে তিনি শেখ রেহানার সাথেও যোগাযোগ করার চেষ্টা করছেন। তিনি ইতিমধ্যেই প্রস্তাব দিয়েছেন,সরকার নেপথ্যে থেকেই কিছুটা স্বস্তিকর অবস্থানে যেতে জামায়াতকে সহযোগীতা করলে বিএনপির জোট থেকে সরে আসবে জামায়াত। আর সরকার সরাসরি অবস্থান না নিলে খেলছে জামায়াতকে নিয়ে ক্ষমতার রাজনৈতিক খেলা। আর এ কৌশলী খেলার ধারাবাহিকতায় যুদ্ধাপরাধের দায়ে মৃত্যুদন্ডে দন্ডিত ব্যাক্তি রাষ্ট্রপতির কাছে প্রানভিক্ষা চাওয়ার পথও খোলা রেখেছে সরকার। যদিও জামায়াতের কোন শীর্ষনেতা প্রানভিক্ষা চাইবেন না। তারা আপিল করবেন। এই আপিল প্রক্রিয়া বিলম্বিত করে রায় আপাতত কার্যকর না করার জন্য সরকারের কাছ থেকে আশ্বাস চাইছেন ব্যারিষ্টার রাজ্জাক।

পর্দার আড়ালে জামায়াত – সরকারের একধরনের অদৃশ্য সমঝোতা হয়েছে। আর এ সমঝোতার কারনেই গোলাম আজমের জানাজায় নতুন করে জামায়াত আরো একবার বায়তুল মোকাররমে নিজেদের জনসমর্থনের প্রমান দেখাতে পেরেছে কোন বাধাবিগ্ন ছাড়াই। পুলিশসহ আইনশৃংখলা বাহিনী নিয়োজিত ছিল জানাজায় যাতে বিঘ্ন না ঘটে এ জন্য।

আর মাওলানা নিজামী দশ ট্রাক অস্ত্র মামলায় আগেই মৃত্যুদন্ডে দন্ডিত। এছাড়া সরকারের সাথে সমঝোতার অংশ হিসেবেই মীর কাশেম আলী মৃত্যুদন্ডের রায়ে রোববার দন্ডিত হবেন না, একটি সুত্র এ খবর জানিয়েছে।

BIGTheme.net • Free Website Templates - Downlaod Full Themes