সোমবার , ২৮ মে ২০১৮
শিরোনাম

রাজধানীসহ বিভিন্ন স্থানে হরতালের সমর্থনে মিছিল

hartal৭১বাংলা: লতিফ সিদ্দিকীর সর্বোচ্চ শাস্তির দাবিতে সম্মিলিত ইসলামি দলসমূহের ডাকা হরতালের সমর্থনে রাজধানীসহ দেশের বিভিন্ন স্থানে মিছিল ও পিকেটিং করেছে নেতা-কর্মীরা।
উত্তরা : রোববার সকাল ৭টায় আজমপুর কাঁচাবাজার এলাকায় সম্মিলিত ইসলামি দলসমূহের নেতাকর্মীরা মিছিল সমাবেশ করে। মিছিলে নেতৃত্বদেন মাওলানা আইয়ুব আলী, মাওলানা যাকির হোসাইন, মাওলানা আজিজুল ইসলাম শহীদ, মাওলানা মনোয়ার হোসাইন, মাওলানা কাওসারুজ্জামান, সোহেল পাটোয়ারী ও কামরুজ্জামান সোহাগ প্রমুখ।
বংশাল : রোববার বাদ ফজর বংশালের আরমানিটোলায় সম্মিলিত ইসলামি দলসমূহের নেতাকর্মীরা মিছিল করেন। মিছিলে নেতৃত্ব দেন  মাওলানা  তাফাজ্জল হোসেন, মাওলানা  জয়নাল আবেদীন এবং মাওলানা আসাদুল্লাহ।
রাজশাহী ব্যুরো জানায়, রাজশাহী মহানগরীতে হরতালের সমর্থনে বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশ করেছে সম্মিলিত ইসলামী দলসমূহ। রাজশাহী রেলওয়ে স্টেশন থেকে রোববার সকাল ৭টার দিকে বিক্ষোভ মিছিল বের করা হয়। মিছিলটি বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিণ শেষে শহীদ কামারুজ্জামান চত্বরে সমাবেশে মিলিত হয়। এতে বক্তব্য রাখেন, সম্মিলিত ইসলামী দলসমূহের নেতা মাওলানা শহিদুল ইসলাম ও বোরহান উদ্দিন প্রমুখ।
এদিকে হরতালের মধ্যে সকালে রাজশাহী রেলওয়ে স্টেশন থেকে ট্রেন ছেরে গেলেও নগরীতে দূরপাল্লাসহ আভ্যন্তরীণ রুটে কোনো বাস ছেড়ে যায়নি। তবে রিকশা, ব্যাটারিচালিত অটোরিকশা চলাচল স্বাভাবিক রয়েছে।
রাজশাহী মহানগর পুলিশের উপ-কমিশনার তানভীর হায়দার চৌধুরী জানান, হরতালের কারণে নগরীর বিভিন্ন পয়েন্টে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। বাড়ানো হয়েছে গোয়েন্দা নজরদারি।
রংপুর অফিস জানায়, রংপুরে হরতালের সমর্থনে সকাল ১০টা পর্যন্ত কেউ মাঠে না নামলেও দূরপাল্লার কোনো যানবাহন ছেড়ে যায়নি।
রংপুর রেলওয়ে তত্ত্বাবধায়ক মোজাম্মেল হক জানান, রংপুর রেলওয়ে স্টেশন থেকে ট্রেন চলাচল স্বাভাবিক রয়েছে।
কোতয়ালী থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আব্দুল কাদের জিলানী জানান, হরতালে সাইকেল রিকশা ও অটোরিকশা চলাচল করলেও ভারি কোনো যানবাহন চলাচল করছে না। হরতালে যেন কোনো বিশৃঙ্খলা না হয়, সেজন্য বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ স্থানে ব্যাপক কড়া পুলিশি টহল জোরদার করা হয়েছে।
অপরদিকে, পুলিশ টহলের পাশাপাশি নগরীতে র‌্যাব-১৩ এর সদস্যরা টহল দিচ্ছেন।
বগুড়া অফিস জানায়, বগুড়ায় হরতাল চলাকালে কোনো অপ্রীতিকর ঘটনার খবর পাওয়া যায়নি। রিকশা ছাড়া সব ধরনের যানবাহন চলাচল বন্ধ রয়েছে। এছাড়া সব ধরনের ব্যবসায় প্রতিষ্ঠান বন্ধ রয়েছে। সরকারি ও বেসরকারি অফিস খুললেও তেমন কাজ নেই।
শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুললেও কাশ হচ্ছে না। কারণ যানবাহনের অভাবে কেউ যাতায়াত করতে পারছে না। হরতালের সমর্থনে কোনো তৎপরতা নেই। তবে আইন শৃংখলা বাহিনী রয়েছে সতর্ক অবস্থানে।

সাতক্ষীরা সংবাদদাতা জানান, দেশব্যাপী সকাল-সন্ধ্য হরতাল সাতক্ষীরায় কোনো অপ্রীতিকর ঘটনা ছাড়াই পালিত হচ্ছে। রোববার সকাল থেকে দূরপাল্লার ও আভ্যন্তরীণ রুটে কোনো পরিবহন ছেড়ে যায়নি। তবে সড়ক-মহাসড়কে ইঞ্জিন ভ্যান, নছিমন, করিমন চলতে দেখা গেছে। হরতালের সমর্থনে কোথাও কোনো পিকেটিং বা মিছিল সমাবেশের খবর পাওয়া যায়নি।

 

৭১বাংলা/এসএইস

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

You may use these HTML tags and attributes: <a href="" title=""> <abbr title=""> <acronym title=""> <b> <blockquote cite=""> <cite> <code> <del datetime=""> <em> <i> <q cite=""> <s> <strike> <strong>

BIGTheme.net • Free Website Templates - Downlaod Full Themes