Friday , 3 April 2020
শিরোনাম

১ জন থেকে ৭ হাজার জন ‘অসুস্থ’ পাকিস্তানে!

সৌদি আরব থেকে হজ করে আসা এক মধ্যবয়সীর ব্যক্তির শরীর থেকে পাকিস্তানে এক গ্রামের ৭ হাজার জন বা আরো বেশি সংখ্যক মানুষ করোনাভাইারাসে আক্রান্ত হয়ে থাকতে পারে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে।

সাদাত খান (৫০) নামের ওই ব্যক্তি হজ শেষে গত ৯ মার্চ পাকিস্তানে ফিরে আসেন। প্রথা অনুযায়ী গ্রামবাসীরা তার সঙ্গে দেখা সাক্ষাৎ করতে যায়। এরপর তার হজ করা উপলক্ষে একটি ভোজ সভারও আয়োজন করা হয়। সেই ভোজ সভায় ২ হাজারেরও বেশি মানুষ অংশগ্রহণ করেছিলো। এবং তাদের অনেকেই সাদাত খানের সঙ্গে কোলাকুলি করেন।

হজ থেকে ফেরার মাত্র ১০ দিনের মধ্যেই ১৮ মার্চ সাদাত খানের মৃত্যু হয়। মারদান শহরে করোনাভাইরাসে আক্রান্তদের জন্য নির্মিত একটি আইসোলেশন কেন্দ্রে তার মৃত্যু হয়।

সাদাত খান পাকিস্তানে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মারা যাওয়া প্রথম ব্যক্তি। সাদাত খানের মৃত্যুর পর তার গ্রামের সব মানুষকে ( প্রায় ৭ হাজার গ্রামবাসী) কোয়ারেন্টিন তথা গৃহে অন্তরীণ করে রাখা হয়েছে। পুরো গ্রামটিকেই কোয়ারেন্টিন জোন বলে ঘোষণা করা হয়েছে।

পাকিস্তানে এখন পর্যন্ত ৮৭৩ জন করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। মারা গেছেন ৬ জন। অথচ গত সপ্তাহেই দেশটিতে করোনা রোগী ছিলো মাত্র ২২ জন।

মূলত ধর্মীয় সফরে গিয়ে ইরান থেকে ফিরে আসা লোকজনের মাধ্যমেই এই ভাইরাস পাকিস্তানে ছড়িয়ে পড়েছে।