Friday , 3 April 2020
শিরোনাম

করোনার চিকিৎসা করতে গিয়ে প্রাণ হারালেন পাকিস্তানি ডাক্তার

করোনাভাইরাসে আক্রান্তদের চিকিৎসা করতে গিয়ে প্রাণ হারালেন পাকিস্তানের চিকিৎসক ওসামা রিয়াজ (২৬)। বেশ কিছুদিন ধরেই বিদেশ ও পাকিস্তানের অন্যপ্রান্ত থেকে গিলগিট-বালতিস্তানে আসা করোনা আক্রান্ত মানুষদের চিকিৎসা করছিলেন তিনি। তিনিই পাকিস্তানের প্রথম চিকিৎসক যিনি করোনা আক্রান্তের চিকিৎসা করেছিলেন। আর সেই রোগেই মারা গেলেন রিয়াজ।

গিলগিট-বালতিস্তান প্রদেশের মুখপাত্র ফয়জুল্লাহ ফারাক বলেন, বিদেশ ও পাকিস্তানের অন্যপ্রান্ত থেকে আসা করোনা আক্রান্তদের চিকিৎসার জন্য ১০ জন চিকিৎসকের একটি দল তৈরি করা হয়েছিল। ওই দলটি মূলত ইরাক ও ইরানের সীমান্তবর্তী শহর তাফতান থেকে আসা মানুষদের শরীরে করোনা রয়েছে কি-না তা পরীক্ষা করত। পরে গিলগিটে তৈরি হওয়া আইসোলেশন সেন্টার সন্দেহভাজন রোগীদের চিকিৎসা করছিলেন। অন্য চিকিৎসকরা সবাই যখন আতঙ্কে ভুগছিলেন তখন আক্রান্তদের পাশে থেকে তাদের চিকিৎসা করছিলেন ওসামা। তার এই অবদান আমরা কোনোদিন ভুলতে পারব না। এই আত্মবলিদানের জন্য তাকে জাতীয় বীর ঘোষণা করার দাবি জানাচ্ছি আমরা।

জানা গেছে, বৃহস্পতিবার অনেক রাত পর্যন্ত করোনা আক্রান্তদের চিকিৎসা করছিলেন তিনি। কিন্তু, বাড়ি ফেরার পর অচৈতন্য হয়ে পড়েন। সঙ্গে সঙ্গে তাকে গিলগিট শহরের প্রধান সরকারি হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সেখানে চিকিৎসা চলাকালীনই মৃত্যু হয় তার। রবিবার রাতে ওসামার মৃতদেহ ভেন্টিলেটর থেকে বের করে মৃত বলে ঘোষণা করা হয়।

এদিকে, পাকিস্তানে এখনো পর্যন্ত মোট ৭৩০ জন করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছে বলে খবর পাওয়া গেছে। মারা গিয়েছে চারজন। এর মধ্যে সবচেয়ে খারাপ পরিস্থিতি সিন্ধু প্রদেশে। এখানে ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন ২৯২ জন। রবিবার নতুন করে ৪১ জন আক্রান্ত হওয়ার পর গোটা এলাকা লকডাউন করা হয়েছে।